শারীরিক সম্পর্কে ‘না’, গৃহবধূকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

ঢাকা
গৃহবধূকে নির্যাতন   © সংগৃহীত

টাঙ্গাইলে এক গৃহবধূকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১১ মে) সন্ধ্যায় কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা আজিজুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে, এদিন দুপুরে কালিহাতির নাগবাড়ী ইউনিয়নের মরিচা পাইকপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত মোশারফ মিয়া (৪৮) নাগবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য। অভিযোগকারী ওই গৃহবধূ (২৬) মোশারফের ভাগনি ও ভাতিজার স্ত্রী।

ওই গৃহবধূর দাবি, শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেওয়ায় মোশারফের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তিনি। এজন্য তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করেছেন মোশারফ।

গৃহবধূ জানান, মোশারফ দীর্ঘদিন যাবত আমাকে বিভিন্নভাবে কু-প্রস্তাব (শারীরিক সম্পর্ক) দিয়ে আসছিলেন। রমজান মাসে রাতে রান্না করাকালীন তিনি তার বন্ধুদের নিয়ে আমার মুখ চেপেও এ কুপ্রস্তাব দিয়েছেন। এ সময় তিনি চিৎকার করলে তারা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছি, তাই তিনি এভাবে নির্যাতন করছেন। 

অভিযোগ অস্বীকার করেন মোশারফ জানান, অন্যের বুদ্ধিতে ওই গৃহবধূ বাড়ির জায়গা দখল করছেন। এজন্য তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ হচ্ছে। এ ঘটনায় আমি জড়িত না। ঘটনার সময়ে আমি সেখানে ছিলাম না। ওই গৃহবধূ আমার আপন ভাগনি, তাকে কুপ্রস্তাব দেওয়ার প্রশ্নই আসে না।

এদিকে বিষয়ে মোশারফের পরিবার জানিয়েছে ওই গৃহবধূকে নির্যাতন করা হয়নি। ওই জায়গায় তাদের একটি কাঁঠালগাছ আছে। গাছ থেকে কাঁঠাল নিতে গেলে বাঁধা দেওয়া হয়। তখন ওই গৃহবধূ জানায়, কাঁঠাল নিতে হলে তাকে বেঁধে নিতে হবে। এজন্য তারা তাকে গাছে বেঁধে রাখেন। পরে তিনি নিজেই বাঁধন খুলতে দেননি। 

কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা আজিজুর রহমান জানান, গৃহবধূকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


x

সর্বশেষ সংবাদ