আত্মহননের মিছিল থামছেই না, আত্মঘাতী আরও ১১ শিক্ষার্থী

আত্মহত্যা
আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়ে  © প্রতীকী ছবি

করোনাভাইরাসের মহামারিতে গত ১৮ মাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে মানসিক সমস্যা। এতে আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ায় গত দুইশ’রও বেশি শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যার কারণ হিসেবে পড়াশোনার চাপ, ক্যারিয়ার নিয়ে হতাশা, প্রেমে ব্যর্থ, পারিবারিক সমস্যা, সেশনজট, অনশ্চিত ভবিষ্যত, মোবাইলের প্রতি অতিরিক্ত আসক্তি, অবসাদ ও বিষন্নতাকেই প্রধানত চিহ্নিত করা হয়েছে। বিভিন্ন গবেষণায় এমন তথ্য ওঠে এসেছে।

এদিকে, গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে খুলছে স্কুল-কলেজ। আর শিক্ষার্থীদের কমপক্ষে এক ডোজ টিকা দেওয়ার শর্তে চলতি সপ্তাহে খুলতে পারবে সব বিশ্ববিদ্যালয়। দীর্ঘ দেড় বছর পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলার পরও থেমে নেই শিক্ষার্থীদের আত্মহননের মিছিল। আত্মহননের মিছিল যেন থামছেই না। চলতি মাসের ১০ সেপ্টেম্বর থেকে আত্মহত্যার মিছিলে যোগ হলো আরও ১১ শিক্ষার্থী। সর্বশেষ আজ শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ভোররাতে স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন।

সম্প্রতি তরুণদের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করে এমন সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান আঁচল ফাউন্ডেশনের ‘করোনাকালে তরুণদের আত্মহত্যা প্রবণতা বৃদ্ধি’ শীর্ষক এক জরিপ বলছে,  করোনাকালে তরুণদের মধ্যে অধিকাংশই মানসিক বিষণ্ণতায় ভোগেন। যেমন, অধিকাংশ সময় মন খারাপ থাকা, পছন্দের কাজ থেকে আগ্রহ হারিয়ে ফেলা। অস্বাভাবিক কম বা বেশি ঘুম হওয়া, কাজে মনোযোগ হারিয়ে ফেলা, নিজেকে নিয়ে নেতিবাচক চিন্তা করা, সবকিছুতে সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগা। এ সমস্যাগুলো তীব্র আকার ধারণ করলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তারা।

দীর্ঘ ১৮ মাস পর স্কুল-কলেজ খোলার দুুদিন আগে গত ১০ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে এক স্কুলছাত্রী (১৫) বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনার দিন সকাল ১১টায় উপজেলা সদর পৌর সভার ঝাউগড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। সে ওই গ্রামের তারা মিয়ার মেয়ে এবং আড়াইহাজার রোকন উদ্দিন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী।

স্কুল খোলার আগের দিন হোস্টেলে এসে রাজধানীর উত্তরা শাহীন স্কুল এন্ড কলেজের আবির হোসেন খান (১৮) নামে এক শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ১১ সেপ্টেম্বর রাতে আধুনিক হাসপাতাল থেকে তার লাশ উদ্ধার করে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ। স্কুল কর্তৃপক্ষের ধারণা ওই শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে।

মায়ের কাছ থেকে টাকা চেয়ে না পাওয়ায় ১৩ সেপ্টেম্বর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্র। ওইদিন সন্ধ্যায় উপজেলার লাহারকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আজিম হোসেন (১৩) লাহারকান্দি গ্রামের মহিন উদ্দিনের ছেলে এবং বাইশমারা মডেল একাডেমির শিক্ষার্থী। 

একইদিনে রাজধানীর বাড্ডায় ছাদ থেকে লাফিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চন্দন পার্সি নামের এক প্রাক্তন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন। তিনি ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষে জবি থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।

১৪ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারে কুতুবদিয়ায় মিরাজু (১৬) এক স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা করেছে। উপজেলার বড়ঘোপ মাতবর পাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। নিহত স্কুলছাত্রী বড়ঘোপ মাতবর পাড়ার মো. আজাদের মেয়ে। সে মাস্টার তালেব উল্লাহ স্কুলের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী।

২০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় রংপুরের পীরগাছা উপজেলায় বহ্নি আক্তার (১৮) নামে এক কলেজ ছাত্রীর গলায় ওড়না প্যাঁচানো লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সন্ধ্যায় উপজেলার কৈকুড়ী ইউনিয়নের নজর মামুদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত বহ্নি দেবী চৌধুরানী ডিগ্রী কলেজের শিক্ষার্থী এবং ওই ইউনিয়নের হারুন অর রশিদের মেয়ে। এলাকাবাসী বলছে, বহ্নি আত্মহত্যা করেছে। তবে কোন কারণ জানাতে পারেনি তারা।

সুইসাইড নোটে ‘বাবা-মা ক্ষমা করো, গুড বাই’ লিখে গলায় ফাঁস দিয়ে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে শহরের শালগাড়িয়া মেরিল বাইপাস এলাকার এক ছাত্রাবাস থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই শিক্ষার্থীর নাম তাহমিদুর রহমান জামিল (২২)। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শাহীবাগ এলাকার বজলার রহমানের ছেলে। পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন জামিল।

স্মার্টফোন কিনে দিতে না পারায় রিয়াদ হোসেন (১৪) নামে রংপুরের গংগাচড়া উপজেলার এক স্কুলছাত্র আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দোলাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত রিয়াদ হোসেন গংগাচড়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র এবং দোলাপাড়া গ্রামের হুমায়ুন কবীরের ছেলে।

ময়মনসিংহের নান্দাইলে লিজা আক্তার (১৪) নামের এক স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে নান্দাইল মডেল থানা-পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। লিজা স্থানীয় বাকচান্দা আব্দুস ছামাদ একাডেমীর ৯ম শ্রেণির ছাত্রী।

ডিএসএলআর ক্যামেরা কিনে না দেওয়ায় অভিমানে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমরুল কায়েস নামের এক শিক্ষার্থী। আজ ভোররাত ৩টার দিকে ঘরের ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই শিক্ষার্থী। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী। তার গ্রামের বাড়ি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গঙ্গানন্দপুর গ্রামে।

মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় বরিশাল জিলা স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী রাইয়ান (১৫) আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। আজ সকালে নগরীর ব্রাউন কম্পাউন্ডের নিজ বাসভবন থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। স্থানীয়দের দাবি, কয়েকদিন ধরে মা-বাবার কাছে মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার বায়না করেছিল রাইয়ান। কিন্তু তা না পেয়ে ভোররাতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ