ফেসবুকে ‘অতিরিক্ত পুলিশ সুপার’, আসলেই প্রতারক

প্রতারক
প্রতারক আদিল মোহাম্মদ নোমান  © টিডিসি ফটো

ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু্ল কালাম আজাদের ছবি দিয়ে একটি ফেসবুক আইডি খুলে প্রতরণা করার অভিযোগে চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় আদিল মোহাম্মদ নোমান নামে এক প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাতে চুনতি বাজারে লোহাগাড়া থানার এসআই পার্থ সারথী হাওলাদার ও সামশুদ্দৌহার নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে প্রতারণায় ব্যবহার করা সিম ও মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।

আটককৃত নোমান বড়হাতিয়া ইউনিয়নের চাকফিরানী দুর্লভের পাড়ার আবদুল কুদ্দুসের পুত্র।

সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া রহমান জিকু বলেন, ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু্ল কালাম আজাদের ছবি দিয়ে MD AZAD AZAD নামের একটি ফেইক আইডি খুলে প্রতারক নোমান।

“ওই ফেসবুক আইডি থেকে একজন কম্পিউটার অপারেটর লাগবে বলে পোস্ট করে। বিষয়টি বড়হাতিয়ার রুদ্র পাড়ার বাসিন্দা অসীম রুদ্র নজরের পড়েলে ওই ফেসবুক মেসেঞ্জারে অডিও কল দেন। এসময় প্রতারক নোমান নিজেকে ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলে নিজেকে পরিচয় দিয়ে কথা বলে।”

“কথা বলার এক পর্যায়ে আসীম রুদ্রকে বিকাশ নাম্বারে (০১৮৭২০২৫৪১৭) ৫ হাজার ৫৭৫ টাকা পাঠাতে বলে প্রতারক নোমান। টাকা পাঠাতে বেশি চাপ প্রয়োগ করলে অসীম রুদ্র বিষয়টি আমাকে জানান। পরে আমি ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের সাথে কথা বলে জানাতে পারে এ নামে তার কোন ফেসবুক আইডি নেই। তৎক্ষনাৎ ওই প্রতারককে ধরতে মাঠে নামে পুলিশ।”

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রতারক নোমানকে আটক করে। আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ সে প্রতারণার কথা স্বীকার করেন।

বুধবার (২৮ জুলাই) লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকের হোসাইন মাহমুদ বলেন, ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজাদের ছবি ব্যবহার করে প্রতারণার অভিযোগে নোমানকে আটক করা হয়েছে।

তিনি বলেন, পুলিশের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা করার দায়ে অসীম রুদ্র বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছেন। আটকের পর থেকে সকালে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ