বান্ধবীকে আইফোন কিনে দিতে অপহরণ নাটক

অ্যাপল
আইফোন  © ফাইল ফটো

বগুড়ার সোনাতলায় বান্ধবীকে আইফোন কিনে দেওয়ার জন্য বাবার সাথে অপহরণ নাটক করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন এক যুবক। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) ভোররাতে ওই যুবক ও তার বন্ধুকে জয়পুরহাটের কালাইয়ের মোলামগাড়ি হাট এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার যুবকের নাম রাকিবুল হাসান রিয়াদ (১৯)। রিয়াদ সোনাতলা উপজেলার নামাজখালী এলাকার ওবায়দুল ইসলামের ছেলে। আর রিয়াদকে সনহযোগিতাকারী তার বন্ধুর নাম মুন্না হাসান (১৮)। পরে তাদের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে র‌্যাব-১২।

মঙ্গলবার দুপুরে র‌্যাব-১২ এর পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রিয়াদ বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। কিছুক্ষন পর থেকেই তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরবর্তীতে রিয়াদ বাড়ীতে ফিরে না আসায় তার বাবা-মা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে। রিয়াদের কোন সন্ধান না পাওয়ায় গত ২৫ জুলাই তার মা সোনাতালা থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন।

পরবর্তীতে ২৬ জুলাই সকালে রিয়াদের মোবাইল থেকে তার বাবার মোবাইলে ফোন করে মুক্তিপনের জন্য এক লাখ টাকা চাওয়া হয়। টাকা না পেলে রিয়াদকে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়া হয়। এই ঘটনায় রিয়াদের পরিবার দ্রুত বগুড়া র‌্যাব ক্যাম্পে এসে রিয়াদকে উদ্ধারের জন্য সহযোগিতা চায়। ই

পরে র‌্যাব-১২ এর একটি চৌকষ টিম রিয়াদকে উদ্ধারে অভিযান শুরু করে। অবশেষে বগুড়া ও জয়পুরহাটের বিভিন্ন স্থানে অভিযান করে অবশেষে বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া এলাকা থেকে রিয়াদ ও তার বন্ধু মুন্নাকে উদ্ধার করে র্যারব।

র‌্যাব-১২ বগুড়ার কোম্পানী কমান্ডার (লেঃ কমান্ডার) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, রিয়াদ তার বাবার থেকে এক লাখ টাকা মুক্তিপন নেওয়ার উদ্দেশ্যে এই অপহরণ ও মারপিটের নাটক সাজিয়েছিল। দাবীকৃত মুক্তিপনের টাকা দিয়ে রিয়াদ তার এক বান্ধবীকে একটি আইফোন উপহার দেবে বলে জানায়। 

তিনি আরও জানান, অপহৃত রিয়াদ ও তার বন্ধু মুন্নাকে উদ্ধারপূর্বক তাদের অভিভাবকদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকান্ডে নিজেদের জড়াবে না বলে মুচলেকা প্রদান করে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ