মেডিকেল ছাত্র পরিচয়ে প্রেম, দেখা করতে গিয়ে ধরা

প্রেম
মানিকগঞ্জে ছাত্রীর সঙ্গে দেখা করার জন্য এসে যৌন হয়রানি করলে আটক হয় সেই প্রতারক  © সংগৃহীত

ফেসবুকে সম্পর্ক গড়ে প্রতারণার অভিযোগে এসএম আতাউর রহমান (রানা) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে মানিকগঞ্জ থানা পুলিশ। সে নিজেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে পাস করা এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন নারীদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলে। এরপর ঘনিষ্ঠ হওয়ার সুযোগ নিয়ে তাদের সঙ্গে একান্ত মুহূর্তের ছবি তুলে ব্ল্যাকমেল করতো।

আজ সোমবার (১৯ জুলাই) মানিকগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ভাস্কার সাহা বলেন, অভিযুক্ত যুবক ফেসবুক প্রোফাইলে নিজেকে চিকিৎসক এবং একটি হোটেলের মালিক উল্লেখ করে ধীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন এলাকার নারীদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করে। এরপর প্রতারণার ফাঁদে ফেলে শারীরিক সম্পর্ক করে টাকা-পয়সা ও স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নেয়। সম্প্রতি মানিকগঞ্জের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে ফেসবুকের মাধ্যমে বন্ধুত্ব হয় আতাউরের। বন্ধুত্বের সুবাদে সে কয়েকবার মানিকগঞ্জে এসে মেয়েটির সঙ্গে দেখাও করেছে। এক পর্যায়ে, মেয়েটির কাছ থেকে স্বর্ণের চেইন ও হাতের ব্রেসলেট হাতিয়ে নেয়। পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন অজুহাতে আরও অর্থ দাবি করে।

‘এর ধারাবাহিকতায় আতাউর রবিবার মানিকগঞ্জে মেয়েটির সঙ্গে দেখা করার জন্য এসে যৌন হয়রানি করে। সে সময় মেয়েটির চিৎকারে স্থানীয় জনতা তাকে ধরে ফেলে। তারা বিস্তারিত শুনে আতাউরের পরিবারকে মেয়েটির কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে নেওয়া স্বর্ণালংকার ফেরত দেওয়ার কথা বলে। কিন্তু পরিবারের লোকজন তাকে অপহরণ করা হয়েছে বলে ৯৯৯ নম্বরে ফোন ও জেলা পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিস্তারিত জানতে পেরে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।’

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক আতাউর স্বর্ণালঙ্কার নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী তরুণী মানিকগঞ্জ থানায় এজাহার দিলে সেই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অনেক নারী মোবাইল ফোনে প্রতারক আতাউরের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ দিচ্ছেন। প্রতারক ওই যুবককে গ্রেফতার করার পর যথাযথ আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সোমবার দুপুরে মানিকগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হয়েছে। আদালতের কাছে পুলিশের পক্ষ থেকে পাঁচ দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। দ্রুততম সময়ের মধ্যে আসামিকে সঙ্গে নিয়ে মেয়েটির কাছ থেকে নেওয়া স্বর্ণের চেইন এবং ব্রেসলেট উদ্ধারে অভিযান চালানো হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ