ধর্ষণ মামলায় মাদ্রাসা প্রিন্সিপাল গ্রেপ্তার

মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল
ধর্ষণ  © ফাইল ফটো

বিয়ের প্রলোভনে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক মাদ্রাসারন প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় নির্যাতনের শিকার ওই নারী বাদী হয়ে গতকাল বুধবার রাতে মামলাটি করেন। ময়মনসিংহের ভালুকায় এই ঘটনা ঘটেছে।

মামলায় উপজেলার ধলিকুড়ি মধ্যপাড়া গ্রামে অবস্থিত উলুমূল কোরআন আদর্শ মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মো. মাওলানা সিদ্দিকুর রহমানকে (৩৪) আসামি করা হয়েছে। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কবিরাজি চিকিৎসা দেওয়ার সুবাদে ৮-৯ মাস আগে ওই নারীর সঙ্গে মাওলানা সিদ্দিকুর রহমানের পরিচয় হয়। এরপর থেকেই বিভিন্নভাবে ওই নারীকে প্রেম নিবেদন করে আসছিলেন তিনি। একপর্যায়ে বিয়ের প্রলোভনে ওই নারীর সঙ্গে প্রেম ও দৈহিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। 

গত ৮ এপ্রিল সকালে মোবাইল ফোনে ওই নারীকে ডেকে নিজের কক্ষে নিয়ে যান মাওলানা সিদ্দিকুর রহমান। এ সময় তাকে ধর্ষণ করেন বলে মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়। পরবর্তীতে, ওই নারী বিয়ের জন্যে চাপ দিলে মাওলানা সিদ্দিকুর রহমান তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানান। 

এনিয়ে, গতকাল বুধবার দুপুরে ওই নারী ও মো. সিদ্দিকুর রহমানকে নিয়ে ইউপি কার্যালয়ে বসেন ইউপি চেয়ারম্যান। দীর্ঘ সময়ের কোনো সমাধান না হওয়ায় সন্ধ্যার পর স্থানীয়রা ইউপি কার্যালয় ঘেরাও করে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করে।

ইউপি চেয়ারম্যান বজলুর রহমান বাচ্চু জানান, সালিস করার জন্যে নয়, ঘটনাটি জানার জন্যে বুধবার তিনি দুই পক্ষকে নিয়ে তিনি ইউপি কার্যালয়ে বসে ছিলেন।

ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম বলেন, ওই নারীর দেওয়া অভিযোগে ধর্ষণ মামলা নেওয়া হয়েছে। মামলায় সিদ্দিকুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। 


মন্তব্য