ইডেনের প্রাক্তন অধ্যক্ষ হত্যা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ পর্যায়ে

ইডেনের প্রাক্তন অধ্যক্ষ হত্যা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ পর্যায়ে
  © সংগৃহীত

রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ পর্যায়ে এসে গেছে। আজ বৃহস্পতিবার জব্দ তালিকার সাক্ষী মো. আনোয়ারুল ইসলামের সাক্ষ্যগ্রহণ হয় ঢাকার আদালতে। এনিয়ে ২৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হল।

আনোয়ারুলের সাক্ষ্য নেওয়ার পর ঢাকার ১ নম্বর দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর শুনানির পরবর্তী দিন ঠিক করেছেন। ওই দিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিউ মার্কেট থানার এসআই আলমগীর হোসেন মজুমদার সাক্ষ্য দেবেন।

ট্রাইবুনালে রাষ্ট্রপক্ষের বিশেষ কৌঁসুলি আবু আবদুল্লাহ ভূঞাবলেন, তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণের মধ্য দিয়ে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হবে। এ মামলার রায় দ্রুতই হবে বলে আমরা আশা করছি।

বৃহস্পতিবার সাক্ষ্যগ্রহণের সময় কারাগারে থাকা দুই আসামি গৃহকর্মী রিতা আক্তার ওরফে স্বপনা ও রুমা ওরফে রেশমাকে আদালতে হাজির করা হয়।

২০১৮ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি রাজধানী এলিফেন্ট রোডে নিজ বাসায় খুন হন মাহফুজা। এ ঘটনায় তার স্বামী ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসমত কাদির গামা নিউ মার্কেট থানায় মামলা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিউ মার্কেট থানার এসআই আলমগীর গত বছরের ২১ জুলাই দুই গৃহকর্মীর বিরুদ্ধে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

অপর আসামি দুই গৃহকর্মীর জোগানদাতা রুনু বেগমের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ার তার অব্যাহতি দেয় আদালত।

বাসায় থাকা ২০ ভরি সোনা, একটি স্যামসাং মোবাইল ফোন এবং নগদ ৫০ হাজার টাকা চুরি করতে আসামিরা মাহফুজাকে নাকে-মুখে ওড়না পেঁচিয়ে বালিশচাপা দিয়ে হত্যা করেন বলে অভিযোগপত্রে বলা হয়।

মাহফুজা চৌধুরী ২০০৯ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ইডেন কলেজের অধ্যক্ষ ছিলেন। গামা ১৯৭৩ সালে ডাকসু নির্বাচনে জিএস প্রার্থী ছিলেন।


মন্তব্য