আইআইইউসি

সাত লাইনের চিঠি দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯ শিক্ষক-কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত

আইআইইউসি
আইআইইউসি  © ফাইল ফটো

সাত লাইনের একটি চিঠি ধরিয়ে দিয়ে চট্টগ্রামের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম (আইআইইউসি)’ থেকে তিন শিক্ষক ও ছয় কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। এর কারণ হিসেবে চিঠিতে কোনো অভিযোগের কথা উল্লেখ করেনি আইআইইউসি কর্তৃপক্ষ। শুধু বলা হয়েছে, ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন না থাকায় ১৫ জানুয়ারি থেকে আপনাকে চাকরি থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে।’

চাকরিচ্যুত শিক্ষকেরা হলেন ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুহাম্মদ কাওসার আহমেদ, বিবিএ অনুষদের শিক্ষক সায়মা হক ও সেন্টার ফর ইউনিভার্সিটি রিকোয়ারমেন্ট কোর্সের শিক্ষক নুরনবী।

আর কর্মকর্তারা হলেন একাডেমিক অ্যাফেয়ার্স বিভাগের পরিচালক মরতুজা আলী, স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিভাগের উপপরিচালক চৌধুরী গোলাম মাওলা, গ্রন্থাগারের সহকারী পরিচালক নুরুল কবির খান, আনোয়ার হোসাইন নূরী, রেজাউল করিম ও প্রকৌশল দপ্তরের মো. শোয়াইব।

জানা গেছে, প্রতিদিনের মতো গত শনিবার (১৫ জানুয়ারি) কর্মস্থলে এসে চাকরিচ্যুতের এমন চিঠি পেয়ে বিস্মিত হয়েছেন ওই শিক্ষক-কর্মকর্তারা। এদিকে খবরটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে সমালোচনা করেন অনেকেই।

চাকরিচ্যুত স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিভাগের উপপরিচালক চৌধুরী গোলাম মাওলা গত রবিবার তার ফেসবুকের স্ট্যাটাসে লেখেন, কাল ছিল আইআইইউসি থেকে ১৮ বছর দু’মাসের কর্মজীবনের অব্যাহতি দিবস। অসুস্থতাসহ এবার বেকারত্বের পরীক্ষায় অবতীর্ণ। হে আল্লাহ শক্তি দাও।

শিক্ষক-কর্মকর্তাকে অব্যাহতি দেওয়ার চিঠিতে সই করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ শফীউর রহমান। এ বিষয়ে তিনি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেননি। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম আরিফকে ফোন করা হলেও রিসিভ করেননি।

সাত লাইনের চিঠিতে যা আছে:

“যথাযথ কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে জানানো যাচ্ছে যে, আইআইইউসিতে আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন না থাকায় অদ্য ১৫ জানুয়ারি ২০২২ তারিখ থেকে আপনাকে চাকুরি থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে। তবে, আপনাকে আগামী চার মাস অর্থাৎ ১৫ জানুয়ারি থেকে ১৪ মে যথারীতি বেতন প্রদান করা হবে।” চিঠিতে আরও বলা হয়, চলমান সেমিস্টারের ফাইনাল পরীক্ষার ফলাফল যথানিয়মে নির্ধারিত সময়ে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অথবা বিভাগীয় চেয়ারম্যান বরাবর জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হলো। আপনার বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ থেকে অনাপত্তি সংক্রান্ত প্রত্যয়নপত্রসহ পূরণকৃত ক্লিয়ারেন্স ফরম পাওয়া সাপেক্ষে অত্র অফিস থেকে আপনাকে অব্যাহতিপত্র প্রদান করা হবে।


x

সর্বশেষ সংবাদ