কনস্টেবল পদে চূড়ান্তভাবে নিয়োগ পেলেন ৩ হাজার প্রার্থী

নিয়োগ
পুলিশ সদর দফতর এ তথ্য জানায়  © প্রতীকী ছবি

বাংলাদেশ পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগ চূড়ান্ত হয়েছে তিন হাজার নারী ও পুরুষের। মেধা ও শারীরিক সক্ষমতা বিবেচনায় যোগ্যদের চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ সদর দফতর।

আজ শনিবার (২৭ নভেম্বর) পুলিশ সদর দফতরের মিডিয়া শাখার এআইজি মো. কামরুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, তিন হাজার শূন্য পদের বিপরীতে আবেদনকারী ছিল ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৫৩৪ জন। এরমধ্যে প্রাথমিক বাছাইয়ে উত্তীর্ণ হয়েছিলেন ১ লাখ ১৭ হাজার ৬৮ জন। শারীরিক সক্ষমতা যাচাই শেষে ২৩ হাজার ৬৯৭ প্রার্থী লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন। উত্তীর্ণ ৭ হাজার ৪০০ জন প্রার্থীর মধ্যে চূড়ান্ত নিয়োগ পেয়েছেন ৩ হাজার।

এবারের কনস্টেবল নিয়োগ পরীক্ষায় নিম্নবিত্ত পরিবারের, যেমন— দিনমজুর, কৃষক, ভ্যানচালকের সন্তানরাই চাকরি পেয়েছেন। কোনও তদবির বা অর্থ ছাড়া এ চাকরি যাদের কাছে ছিল স্বপ্নের মতো। জনপ্রতি নেওয়া হয়েছে ১৩৩ টাকা ফি। চাকরি পেয়ে আবেগ ধরে রাখতে পারেননি অনেকে। দেশের ৬৪ জেলাতেই আবেগঘন দৃশ্য চোখে পড়েছে বলে উল্লেখ করা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

পিআরবি পরিবর্তনের মাধ্যমে মেধা ও শারীরিক যোগ্যতার ভিত্তিতে কনস্টেবল পদে সাতটি ধাপে নিয়োগ প্রক্রিয়ার প্রথম ধাপে রয়েছে প্রাথমিক বাছাই, দ্বিতীয় ধাপে শারীরিক মাপ এবং ফিজিক্যাল এনডুরেন্স টেস্ট, তৃতীয় ধাপে লিখিত পরীক্ষা, চতুর্থ ধাপে মনস্তাত্ত্বিক ও মৌখিক পরীক্ষা, পঞ্চম ধাপে প্রাথমিক নির্বাচন, ষষ্ঠ ধাপে পুলিশ ভেরিফিকেশন ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং সপ্তম ও সর্বশেষ ধাপে প্রশিক্ষণে অন্তর্ভুক্তকরণ। শারীরিক সক্ষমতা ৭টি ইভেন্টের মধ্য দিয়ে যাচাই করা হয়েছে। যার মধ্যে ছিল দৌড়, পুশআপ, লং জাম্প, হাইজাম্প, ড্র্যাগিং ও রোপ ক্লাইম্বিং।


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ