৩৮তম বিসিএস

নন-ক্যাডারে নিয়োগের অপেক্ষায় ২৫০০ পদ

সরকারি
সরকারি কর্ম কমিশন  © লোগো

৩৮তম বিসিএসে নন-ক্যাডার থেকে দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরির নিয়োগের অপেক্ষায় রয়েছে প্রায় ২ হাজার ৫০০ পদ। এখন প্রথম শ্রেণির পদ না থাকায় ওই পদে নিয়োগের সুপারিশ বন্ধ করেছে পিএসসি।

তাই এখন ৩৮তম বিসিএসের নন–ক্যাডার থেকে প্রায় ২ হাজার ৫০০ পদে নিয়োগের সুপারিশ করা হবে ।

সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তবে কোন পদে এই নিয়োগ দেওয়া হবে, সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

তথ্য মতে, ৩৮তম বিসিএসে নন-ক্যাডার থেকে এর আগে ১ হাজার ২০০ জনকে প্রথম শ্রেণির বিভিন্ন পদে সুপারিশ করা হয়।

৩৮তম বিসিএসের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেও পদের স্বল্পতায় ৬ হাজার ১৭৩ জন ক্যাডার পদে নিয়োগের সুপারিশ পাননি। তাদের মধ্য থেকে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের জন্য ৫ হাজার ৩২ জন কমিশনে আবেদন করেন। এই প্রার্থীদের বিসিএসের মেধাক্রম ও সংশ্লিষ্ট পদের নিয়োগবিধির ভিত্তিতে ২ দফায় ১ হাজার ২০০ জনকে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করেছে  (পিএসসি)।

পরে কমিশনের ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করে বিভিন্ন ক্যাডারে ২ হাজার ২০৪ জনকে নিয়োগের সুপারিশ করে পিএসসি। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গেজেট প্রকাশ করে ২ হাজার ১২৯ প্রার্থীকে নিয়োগের বিষয় চূড়ান্ত করে। পিএসসির সুপারিশ করা তালিকা থেকে ৭৫ জন বাদ পড়েন।

উল্লেখ্য, চূড়ান্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও যারা ক্যাডার পান না, তাদের মধ্য থেকে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয় ৩১তম বিসিএস থেকে। বিসিএসে উত্তীর্ণ ব্যক্তিদের মধ্য থেকে (যারা ক্যাডার পাননি) দ্বিতীয় শ্রেণির কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দিতে ২০১৪ সালের ১৬ জুন নন-ক্যাডার পদের নিয়োগ বিধিমালা সংশোধন করে সরকার।


মন্তব্য