গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা

বিজ্ঞানের মতো মানবিকের প্রশ্নও সিলেবাসের বাইরে, হতাশ ভর্তিচ্ছুরা

বিজ্ঞানের মতো মানবিকের প্রশ্নও সিলেবাসের বাইরে, হতাশ ভর্তিচ্ছুরা
পরীক্ষার হল পরিদর্শন করছেন ইবি উপাচার্য  © টিডিসি ফটো

গুচ্ছের অধীনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরীক্ষায় ৭ হাজার ২৮৮ জন ভর্তিচ্ছু অংশগ্রহণ করেন। মোট পরীক্ষার্থী ছিল ৭ হাজার ৫৮৫ জন। শতকরা হিসাবে ৯৬ শতাংশ শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। তবে ভর্তিচ্ছুদের অভিযোগ বিজ্ঞানের মতো মানবিকের প্রশ্নও সিলেবাসের বাইরে থেকে এসেছে। 

শনিবার বেলা ১২টা থেকে ১ট পর্যন্ত চারটি ভবনে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।  পরীক্ষা চলাকালীন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। এসময় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, ভর্তি পরীক্ষার নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা উপ-কমিটির আহবায়ক প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মু. এইচ এম আলী হাসান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন: প্রক্সি দিতে এসে আটক ওলামা লীগ নেতার ছেলে

এদিকে পরীক্ষার প্রশ্ন নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। ভর্তিচ্ছুরা জানান, এইচএসসি পরীক্ষা যে সংক্ষিপ্তসিলেবাসে হয়েছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষাও একই সিলেবাসে হওয়ার কথা ছিল। সে হিসেবেই তারা প্রস্তু তিনিয়েছেন। গুচ্ছ কমিটিও এ সিলেবাসেই ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন করবেন বলে জানিয়েছেন। তবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের বাইরে থেকেও অনেকগুলো প্রশ্ন এসেছে। 

বাংলা ৩৫, ইংরেজি ৩৫ ও সাধারণ জ্ঞান ৩০ মিলিয়ে মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরমধ্যে বাংলায় বেশির ভাগ সিলেবাসের বাইরে থেকে প্রশ্ন এসেছে। এছাড়া সাধারণ জ্ঞান যেভাবে আসার কথা ছিল সেভাবে আসেনি। ইংরেজিও বেশ কঠিন ছিল বলেও জানিয়েছেন কয়েকজন ভর্তিচ্ছু।

বগুড়া থেকে আসা নাজমুস সাকিব বলেন, সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে আমাদের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। সে হিসেবে সিলেবাসের বাইরে থেকেও প্রশ্ন এসেছে। সিলেবাস কেন্দ্রীক পড়াশোনা করে থাকলে একটু কঠিন হয়ে যেত। পরীক্ষা ভালো হয়েছে।

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী রিফাত বলেন, সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও পুরো  সিলেবাস থেকে প্রশ্ন হয়েছে। পরীক্ষা মোটামুটি ভাল হয়েছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ