ঢাবিতে চান্স না পেলে কী করবেন বেলায়েত?

ঢাবি
বেলায়েত শেখ   © ফাইল ফটো

৫০ বছর বয়সে এসেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী হওয়ার স্বপ্ন পূরণে আজ শনিবার ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন গাজীপুরের বেলায়েত শেখ। পরীক্ষা ভালোই দিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন পরীক্ষা শেষে। তবে প্রতিযোগিতা যেহেতু তরুণদের সাথে আবার প্রতি আসনের জন্য লড়তে হয়েছে প্রায় ৫৮ জন ভর্তিচ্ছুর বিপরীতে, তাই টিকতে না পারার ভয় রয়েছে বেলায়েত শেখেরও।

তাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স না পেলে পড়াশোনা ছেড়ে দিবেন কি না সেই প্রশ্ন থেকেই যায়। তবে এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, “কখনোই না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমার স্বপ্ন বটে, তবে পড়াশোনা নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।”

পরীক্ষা শেষে তিনি আরো বলেন, “আমার তো শেষ বয়স, আমি একা সাগর পাড়ি দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছি; আমার সঙ্গে যারা পরীক্ষা দিয়েছে তারা একটা ছোট্ট খাল পাড়ি দিয়েছে।

“লেখাপড়ার জন্য ইচ্ছাশক্তি আগে থেকেই ছিল, চেষ্টা করেছি, এ পর্যন্ত এসেছি। আমি অসময়ে লেখাপড়ায় আসছি, পরবর্তী প্রজন্মকে বলব তারা যেন যথাসময়ে পরীক্ষা দিয়ে জীবন গড়তে পারে।”

আজ সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের ৮টি বিভাগীয় শহরের বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। মোট আসন ১ হাজার ৩৩৬ আসনের বিপরীতে ৭৮ হাজার ৪৫ জন শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন। সেই হিসেবে আসনপ্রতি লড়েছেন ৫৮ জন ভর্তিচ্ছু।

বেলায়েত শেখ বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষা নিয়ে নিজের ‘অপূর্ণতা’ তিনি পূরণ করতে চেয়েছিলেন ভাই-বোনদের মাধ্যমে, পরবর্তীতে সন্তানদের দিয়ে। কিন্তু তা পূরণ না হওয়ায় আক্ষেপ নিয়ে তিনিই আবার পড়ালেখা শুরু করেন।

২০১৭ সালে ঢাকার বাসাবোর দারুল ইসলাম আলিম মাদরাসা থেকে ৪ দশমিক ৪৩ জিপিএ নিয়ে তিনি এসএসসি (ভোকেশনাল) পাস করেন। এরপর ২০২১ সালে রামপুরার মহানগর কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে জিপিএ ৪ দশমিক ৫৮ পেয়ে পাস করেন এইচএসসি (ভোকেশনাল)।

এরপর থেকে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি শুরু করেন। গত ১৯ মে বেলায়েত শেখ তার ফেসবুক আইডিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করলে তা নিয়ে শোরগোল পড়ে যায়।


x