চবির ভর্তি পরীক্ষা আগামীকাল, আসনপ্রতি লড়বে ৩৭ জন

ভর্তি পরীক্ষা
চবির ভর্তি পরীক্ষা আগামীকাল  © ফাইল ফটো

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক ১ম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামীকাল বুধবার (২৭ অক্টোবর)। পরীক্ষা চলবে আগামী ৫ নভেম্বর পর্যন্ত। ৪টি ইউনিট ও দুটি উপ-ইউনিটে ৪ হাজার ৯২৬টি আসনে ভর্তির জন্য আবেদন করেছে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৩ জন। এবারের পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৩৭ জন ভর্তিইচ্ছুক শিক্ষার্থী।

২৭ ও ২৮ অক্টোবর ‘বি’ ইউনিট, ২৯ অক্টোবর ‘সি’ ইউনিট, ৩০ ও ৩১ অক্টোবর ‘ডি’ ইউনিট ও ১ ও ২ নভেম্বর ‘এ’ ইউনিট। এছাড়া ৫ অক্টোবর উপ-ইউনিট ‘বি-১’ ও ‘ডি-১’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ‘এ’ ইউনিটে ১ হাজার ২১২টি আসনের বিপরীতে আবদেন করেছেন ৬৮ হাজার ১০৬ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৫৬ জন। ‘বি’ ইউনিটে ১ হাজার ২২১টি আসনের বিপরীতে আবদেন করেছেন ৪২ হাজার ৬৬৮ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তির জন্য লড়বেন ৩৫ জন।

‘সি’ ইউনিটে ৪৪১টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ১৩ হাজার ৯১৮ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনে ভর্তির জন্য লড়বেন ৩২ জন।

‘ডি’ ইউনিটে ১ হাজার ১৬০টি আসনের বিপরীতে ৫৪ হাজার ২৪৯ জন আবেদন করেছেন। সম্মিলিত এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ৪৭ জন লড়বেন।

দুইটি উপ-ইউনিটের মধ্যে ‘বি১’ ইউনিটে ১২৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ২ হাজার ২০ জন। এই উপ-ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তির জন্য লড়বেন ১৬ জন। আর ‘ডি১’ উপ-ইউনিটে ৩০টি আসনের বিপরীতে ২ হাজার ৯০২ জন প্রার্থী আবেদন করেছেন। এই উপ-ইউনিটে আসন প্রতি লড়বে ৯৭ জন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক খাইরুল ইসলাম জানান, আগামী ২৭ তারিখ ‘খ’ ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে এবারের ভর্তি পরীক্ষা পরীক্ষা শুরু হবে। এরইমধ্যে প্রথমদিনের ‘খ’ ইউনিটের দুই শিফটের আসন বিন্যাস আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

এভাবে প্রতি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ৪৮ ঘণ্টা আগে আসন বিন্যাসের খবর ওয়েবসাইটে জানিয়ে দেওয়া হবে। এবং শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা গ্রহণের এক ঘণ্টা আগেও প্রবেশপত্র উত্তোলন করতে পারবে।

এদিকে পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে গোটা ক্যাম্পাসকে আনা হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারির আওতায়। ছাত্রলীগসহ বিবাদমান বিভিন্ন সংগঠনগুলোর ওপর রাখা হচ্ছে বিশেষ নজরদারি। সংঘর্ষ, র্যাগিংসহ অপ্রীতিকর যে কোনো পরিস্থিতি এড়াতে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি।

ক্যাম্পাসে কোনো সংগঠন বা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে লিফলেট কিংবা প্রচারপত্র বিলি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সংঘর্ষের আশঙ্কা থেকে নতুন বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। চট্টগ্রাম জেলা ও মেট্রোপলিটন পুলিশের পাশাপাশি নিরাপত্তা নিশ্চিতে দায়িত্ব পালন করবে র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র্যাব)।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট ৪৮ বিভাগ ও ছয়টি ইনস্টিটিউটের বিপরীতে আসন রয়েছে ৪ হাজার ৯২৬টি। এই হিসেবে ‘এ’ ইউনিটে আসন আছে এক হাজার ২১৪টি; ‘বি’ ইউনিটে এক হাজার ২২১টি; ‘সি’ ইউনিটে ৪৪২টি ও ‘ডি’ ইউনিটে এক হাজার ১৫৭টি। এছাড়া দুইটি উপ ইউনিটের মধ্যে ‘বি১’ ইউনিটে আসন ১২৫টি ও ‘ডি১’ ইউনিটে ৩০টি আসন রয়েছে।


মন্তব্য

x