যে কারণে পেছাতে পারে গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষা

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা
শিক্ষার্থী  © ফাইল ফটো

দেশে প্রথমবারের মতো ২০টি সাধারণ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করায় বিষয়টি নিয়ে আগ্রহের কমতি নেই ভর্তিচ্ছু এবং অভিভাবকদের মধ্যে। ইতোমধ্যে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে।

গতকাল মঙ্গলবার গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর এক জরুরি বৈঠকে ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২৪ অক্টোবর ‘খ’ ইউনিট এবং ১ নভেম্বর ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির একটি সূত্র দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে জানিয়েছে, ভর্তি পরীক্ষার যে তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে; সেটি পরিবর্তনের কোনো সম্ভাবনা নেই। কেবলমাত্র দেশের করোনা পরিস্থিতি যদি উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যায়, তাহলে ভর্তি পরীক্ষা পেছানো হতে পারে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ছাদেকুল আরেফিন বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে জানান, গতকালের সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। সংক্রমণের হার কম থাকায় এটিই ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার ভালো সময়।

করোনা পরিস্থিতি খারাপ হলে পরীক্ষা পেছানো হবে কিনা— এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, আমরা যথা সময়েই ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করতে চাই। তবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি যদি খারাপ হয়ে যায় তাহলে সবার সাথে বসে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ