দূর্গা পূঁজার একদিন পর গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা, বিপাকে শিক্ষার্থীরা

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা
ভর্তি পরীক্ষার্থী  © ফাইল ফটো

আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। ওইদিন গুচ্ছের সবচেয়ে বড় ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে হিন্দু ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দূর্গা পূঁজার ঠিক একদিন পরই ভর্তি পরীক্ষা হওয়ায় বিপাকে পড়েছেন ভর্তিচ্ছুরা। তাই ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর দাবি তুলেছেন শিক্ষার্থীরা।

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা বলছেন, হিন্দু ধর্মালম্বীদের কাছে দূর্গা পূঁজা সবচেয়ে বড় উৎসব। দূর্গা পূঁজার বন্ধ রয়েছে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত। এর ঠিক একদিন পর ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা ঠিক হয়নি। এতে করে শিক্ষার্থীরা দূর্গা পূজার অনুষ্ঠান উদযাপন করা থেকে বঞ্চিত হবে। অনেকে আবার পরীক্ষার প্রস্তুতিও ঠিকভাবে নিতে পারবে না।

এ প্রসঙ্গে বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করা শিক্ষার্থী সৃষ্টি ঘটক বলেন, মুসলমানদের যেমন ঈদ সবচেয়ে বড় উৎসব; তেমনি আমাদের জন্য দূর্গা পূঁজা সবচেয়ে বড় উৎসব। পূঁজার ছুটির ঠিক একদিন পরই পরীক্ষার তারিখ দেওয়ায় আমি পরীক্ষার প্রস্তুতি নেব নাকি উৎসব উদযাপন করবো বুঝতে পারছি না। পরীক্ষার তারিখ একটু পিছিয়ে দিলে এই সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। আশা করছি কর্তৃপক্ষ বিষয়টি বিবেচনা করবে।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটি বলছে, সবার সাথে আলোচনা করে সর্ব সম্মতিক্রমে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। অক্টোবর-নভেম্বর জুড়েই ভর্তি পরীক্ষা থাকায় এই তারিখ পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ছাদেকুল আরেফিন দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ‘‘২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সর্ব সম্মতিক্রমে ভর্তি পরীক্ষার এই তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এর বাইরে আমি আর কিছু বলতে চাই না।’’

প্রসঙ্গত, প্রথমবারের মতো এবার ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করতে যাচ্ছে। আগামী ১৭ অক্টোবর ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ‘খ’ ও ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হবে যথাক্রমে ২৪ অক্টোবর এবং ১ নভেম্বর।


মন্তব্য