সাত টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ভর্তির খুঁটিনাটি

পরীক্ষা
ভর্তি পরীক্ষা  © ফাইল ছবি

বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত এবং বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীন বস্ত্র অধিদপ্তর পরিচালিত ৭টি টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ৪ বছর মেয়াদী বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং প্রোগ্রামে ভর্তির আবেদন শুরু হয়েছে। ১ জুন শুরু হওয়া এ আবেদন চলবে ৮ জুলাই পর্যন্ত।

কলেজ সাতটি হচ্ছে- চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জের টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, পাবনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, বরিশালের শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, ঝিনাইদহের শেখ কামাল টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, রংপুরের পীরগঞ্জের ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এবং গোপালগঞ্জের শেখ রেহানা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ।

আবেদনের যোগ্যতা

১. প্রার্থীকে দেশের যে কোনো শিক্ষা বোর্ড থেকে ২০১৭ বা ২০১৮ সালে এসএসসি বিজ্ঞান/সমমান পরীক্ষা বা বিদেশি শিক্ষা বোর্ড থেকে সমমানের পরীক্ষায় এবং ২০১৯ বা ২০২০ সালে এইচএসসি বিজ্ঞান/সমমান পরীক্ষা পাস করতে হবে।

আরো পড়ুন সাত টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ভর্তির আবেদন চলছে, পরীক্ষা ১৭ জুলাই

২. এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগ থেকে প্রত্যেকটিতে আলাদাভাবে নূন্যতম জিপিএ ৩.৫ পয়েন্ট থাকতে হবে। এইচএসসি পরীক্ষায় গণিত, পদার্থ, রসায়ন ও ইংরেজিতে মোট গ্রেড পয়েন্ট কমপক্ষে ১৫ থাকতে হবে এবং প্রত্যেকটিতে আলাদাভাবে ৩ পয়েন্ট থাকতে হবে।

আবেদন ফি : ১০০০ টাকা। শুধুমাত্র টেলিটক অপারেটরের মাধ্যমে আবেদন গ্রহণ করা হবে।

প্রবেশপত্র ডাউনলোড : ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে প্রার্থীদের http://dot.teletalk.com.bd বা www.dot.gov.bd ওয়েবসাইটে ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে হবে। তার পর আবেদনকারীর ছবি ও স্বাক্ষর আপলোড দিতে হবে। আবেদনকারীর ছবির দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ ৩০০*৩০০ পিক্সেল হতে হবে এবং ছবির ফাইল সাইজ ১০০ কেবি’র বেশি হবে না। এছাড়া আবেদনকারীর স্বাক্ষরের দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ ৩০০*৮০ পিক্সেল হতে হবে এবং ছবির ফাইল সাইজ ৬০ কেবি’র বেশি হবে না। সফলভাবে সাবমিট করার পর আবেদনকারী প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবে। প্রবেশপত্র ডাউনলোডের সময় এসএমএসের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

ভর্তি পরীক্ষার মানবণ্টন

এমসিকিউ পদ্ধতিতে সর্বমোট ২০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে গণিতে ৬০, রসায়নে ৬০, পদার্থ বিজ্ঞানে ৬০ এবং ইংরেজিতে ২০ নম্বর থাকবে। মোট ১০০টি প্রশ্ন থাকবে। প্রতি প্রশ্নের মান ২। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.৫ নম্বর কাটা যাবে।

পরীক্ষার সময় ও তারিখ : ভর্তি পরীক্ষা ১৭ জুলাই ২০২১ তারিখ শনিবার বেলা ১০টা থেকে ১১টা ২০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

পরীক্ষার স্থান : সাতটি কলেজ ক্যাম্পাস

পরীক্ষার ফলাফল ও বাছাই প্রক্রিয়া: ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হবে বস্ত্র অধিদপ্তর ও সকল কলেজের ওয়েবসাইট এবং নোটিশ বোর্ডে ১৯ জুলাই ফলাফলা প্রকাশ করা হবে। ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে। প্রার্থীর মেধা ও পছন্দের ক্রম অনুযায়ী নির্বাচিতদের মেধা তালিকা কলেজভিত্তিক প্রকাশ করা হবে।

বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি দেখতে এখানে ক্লিক করুন


মন্তব্য