বার্ষিক পরীক্ষায় ফেল করলে থাকতে হবে সেই শ্রেণিতেই

বার্ষিক পরীক্ষা
পরীক্ষার্থী  © ফাইল ফটো

আগামী ২৪ নভেম্বর থেকে মাধ্যমিকের ৬ষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হবে। পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পারলে পরের শ্রেণিতে শিক্ষার্থীদের প্রমোশন দেওয়া হবে না। ফেলকৃতদের নিজ শ্রেণিতেই পড়ালেখা করতে হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, করোনার কারণে এবার বার্ষিক পরীক্ষা হবে ৫০ নম্বরের ভিত্তিতে। আর বাকি ৫০ শতাংশের মূল্যায়ন হবে ‘অ্যাসাইনমেন্ট’, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাসহ স্বাস্থ্যবিধি মানা, বৃক্ষরোপণ ইত্যাদি কাজের ওপর। এই পরীক্ষায় ফেল করলে শিক্ষার্থীদের ওই শ্রেণিতেই থাকবে হবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মাউশি মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক গণমাধ্যমকে বলেন, শিক্ষার্থীদের প্রমোশনের ক্ষেত্রে অবশ্যই পাস-ফেল বিবেচনা করা হবে। পরীক্ষার ক্ষেত্রে সব সময় যেটা হয়, এখানেও তা–ই হবে।

এর আগে গত বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে আগামী ২৪ থেকে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ৬ষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা এবং দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষা শেষ করার নির্দেশনা জারি করে মাউশি।

ওই নির্দেশনায় বলা হয়, বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ গণিত বিষয়ে পরীক্ষা হবে। দেড় ঘণ্টার পরীক্ষার প্রত্যেক বিষয়ের প্রশ্নপত্রের মান হবে ৫০ নম্বরের।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ