আনিসুল হককে নিয়ে এইচএসসিতে বিতর্কিত প্রশ্ন, তদন্তে কমিটি

কারিগরি শিক্ষা বোর্ড
কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের দু’টি পরীক্ষার বিষয়ে তদন্ত করছে কর্তৃপক্ষ  © ফাইল ছবি

জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক আনিসুল হককে নিয়ে বিতর্কিত প্রশ্নের ঘটনা তদন্তের উদ্যোগ নিয়েছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি প্রশ্নপত্রে মুদ্রণজনিত ত্রুটির কারণে একটি পরীক্ষা স্থগিত করার বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ জন্য বোর্ডের সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর খান বলেন, একাদশ শ্রেণির বাংলা-১-এর পরীক্ষা স্থগিত করার বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই কমিটিকে এইচএসসি (বিএম) পরীক্ষায় বাংলা-২ পরীক্ষায় বিতর্কিত প্রশ্ন করার বিষয়টিও তদন্ত করতে বলা হয়েছে। তদন্ত করে তিন থেকে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

গত রোববার এইচএসসি (বিএমটি) পরীক্ষা শুরুর দিন একাদশ শ্রেণির বাংলা-১ এর পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। বোর্ড একটি সূত্র জানায়, একাদশ শ্রেণিতে দুই ধরনের পরীক্ষার্থী রয়েছে। ভুলবশত নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের জন্য পুরোনো পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে প্রশ্নপত্র ছাপা হয়। পুরোনো (অনিয়মিত) পরীক্ষার্থীদের জন্য ছাপা হয়েছে নতুন পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে। এটি জানাজানি হলে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়।

আরো পড়ুন: ডিপ্লোমা প্রকৌশল পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নের সুযোগ হারাচ্ছে ইনস্টিটিউগুলো

একই দিনে এইচএসসি (বিএম) পরীক্ষায় বাংলা-২ (সৃজনশীল) পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে লেখক-কথাসাহিত্যিক আনিসুল হককে হেয় করে প্রশ্ন করা হয়। এ নিয়ে সমালোচনা শুরু হলে তা তদন্তের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীন এইচএসসি পরীক্ষায় বিতর্কিত প্রশ্ন প্রণয়নকারী ও চার মডারেটরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে তদন্ত কমিটি।

প্রতিবেদন পেলে ব্যবস্থা নেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বোর্ড। কমিটির প্রধান যশোর শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক এম রব্বানী বলেন, প্রশ্নপত্র প্রণয়নে যুক্ত পাঁচ শিক্ষকের সঙ্গেই কথা বলবেন তাঁরা। পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যেই প্রতিবেদন দেবেন।


সর্বশেষ সংবাদ